ভিজিট করুন নতুন ও স্হায়ী ব্লগ www.alomoy.com, it.alomoy.com

মজার জিনিস ক্যালিডোস্কোপ; ছবি ও বর্ণনা

 ক্যালিডোস্কোপ কিঃ একটি নলের ভেতরে কিছু নানা রঙের কাচের টুকরো বা নুড়ি পাথর রাখা হয়। এতে তৈরি হয় অনেক সুন্দর নকশা। একটু ঘোরালেই পরিবর্তন হয় নকশার কাঠামো। কিন্তু কোন অগোছালো নকশা নয়। এসব নকশাকে কাজেও লাগানো যায়- ওয়ালপেপার, কার্পেট বা কাপড় অলঙ্কৃত করার কাজে। সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে নলের ভেতর দিয়ে তাকানোর সৌন্দর্য্য।  

কীভাবে কাজ করে; 
দুচারটে পরস্পরমুখী আয়না দিয়েই এটি বানানো যায়। একপাশে বস্তুটি থাকে। অপর পাশে কাচ বসিয়ে চোখ রাখলে নলের ভেতর দিয়ে আসা আলোকরশ্মি কাচগুলোতে প্রতিফলিত হয়। সবশেষে চোখে এসে ধরা দেয় সুন্দর নকশা। আরো বেশি কাচ ব্যাবহার করলে নকশাও দেখা যাবে বেশি বেশি। একটু নাড়িয়ে নিলেই নকশা হয়ে যাবে আরেকরকম কিন্তু পরিবর্তন আসবে শুধু বৈচিত্রেই সৌন্দর্যে নয়। আয়নার বদলে প্লাস্টি, নুড়ি, পেপারক্লিপ দিয়েও ক্যালিডোস্কোপ বানানো যায়।

আবিষ্কারঃ স্যার ডেভিড ব্রুস্টার আলোর পোলারাইজেশন পরীক্ষণ চালাতে গিয়ে ক্যালিডোস্কোপ আবিষ্কার করে ফেলেন। তখন ১৮১৭ সাল। তিন মাসের মাথায় এর ২ লাখ বিক্রি হয়ে যায় লন্ডনে ও প্যারিসে।

 বৈশিষ্ট্যঃ এর মধ্যে যদি ২০ টুকরো কাচ ভরা হয় আর ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে প্রতি মিনিটে দশটা করে নকশা দেখা হয় তাহলে সবগুলো নকশা দেখতে সময় লাগবে..............কত ভাবতে পারেন?...............৫০,০০০ কোটি বছর!!!!!

 বর্তমানে এর আলোকচিত্র নেয়া সম্ভব বলে নকশা তৈরির কাজে এটি ব্যাবহার করা হয়।

1 টি মন্তব্য:

ইমেইলে গ্রাহক হোন